Uncategorized

What is Alaul? What is Alaul’s goals?

Alaul

আলাউল (alaul) কি? কি এর উদ্দেশ্য?

আলাউল ডট কম (alaul.com) একটি ভিন্নধর্মী পাইকারি বাজার (wholesale Marketplace) দেশিও উদ্যোক্তাদের ভাল মানের পণ্যের জন্য দেশের ভেতর ও ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নতুন বাজার সৃষ্টির জন্যই আমাদের এই উদ্যোগ। 

আমরা লক্ষ্য করেছি দেশিও ছোট উদ্যোক্তা এবং কখনো কখনো মাঝারি উদ্যোক্তাগণও বড়/আন্তর্জাতিক 

ব্রান্ডসমূহের কাছে প্রতিযোগিতায় হেরে গিয়ে ব্যবসা বন্ধ করে দিচ্ছে, এমনকি কাউকে কাউকে পুঁজি হারিয়ে পথেও বসতে হচ্ছে। আমরা দেশিও উদ্যোক্তাদের এমন পরিস্থিতি থেকে রক্ষা করে তাদের পণ্যকে বিশ্ব দরবারে ব্রান্ড আকারে পৌঁছে দিতে চাই। আর এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্যই আলাউল ডট কম (alaul.com)-এর জন্ম।

তবে এটা খুব সহজ কাজ নয়। আলাউল ডট কম (alaul.com) তার লক্ষ্য অর্জনের জন্য সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটিকে তিনটি ধাপে ভাগ করেছে। ধাপ তিনটি হলঃ-

# সমস্যা কি?

# সমাধানের উপায়

# নির্ণীত সমাধানের বাস্তবায়ন

আর তৃতীয় ধাপটিই হল আলাউল ডট কম (alaul.com)-এর সাফল্যের মূল চাবিকাঠি। নিচের আলোচনা থেকে আশা করি এটি পরিস্কার হয়ে যাবে।

প্রথম ধাপঃ-  সমস্যা চিহ্নিতকরণ 

আমারা সমস্যাকে তিনটি ভাগে ভাগ করতে পারি।

১) ভালমানের পণ্যের দুষ্প্রাপ্যতাঃ- আন্তর্জাতিক কোম্পানির বিশাল পরিমানের বিনিয়োগ থাকায় তারা নিজেদের মার্কেটিং ব্যয় ও উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা অনেক বেশি পরিমানে নির্ধারণ করতে পারে যাতে করে সমস্থ দেশে তার পণ্য ছড়িয়ে দিতে পারে। ফলে সামগ্রিক ভাবে উৎপাদণ ও আনুষঙ্গিক বাজার ব্যবস্থাপনায় তার ব্যয় ছোট কোম্পানির তুলনায় অনেক বেশি হলেও তাদের উৎপাদিত পণ্য দিয়ে মোট ব্যয়কে ভাগ করলে দেখা যায় প্রতি পণ্য পেছনে খরচ খুবই কম এবং প্রকৃত অর্থে এটাই তাদের অনেক বেশি লভ্যাংশ অর্জনের মূলমন্ত্র। আর অন্যদিকে এটাই ছোট কোম্পানি/উদ্যোক্তার জন্য মরন ফাঁদ, কারণ পুঁজি সল্পতার জন্য ছোট কোম্পানিকে অল্প পরিমাণে উৎপাদন করতে হয় যেখানে তার আনুষঙ্গিক (প্রচার-প্রচারনা, বণ্টন, ইত্যাদি) খরচ একই থাকে; ফলে প্রতি পণ্য পেছনে উৎপাদন খরচ অনেক বেশি হয়ে যায়। আর পণ্যের মূল্য আন্তর্জাতিক কোম্পানির সাথে প্রতিযোগিতামূলক রাখার বাধ্যবাধকতার জন্য ভাল মানের পণ্য উৎপাদন ও নিজেদের সক্ষমতা প্রমানে তারা ব্যর্থ হয়। 

২) পণ্যের বিপণন ব্যবস্থায় মধ্যসত্ত্ব ভোগীঃ- আন্তর্জাতিক কোম্পানি যেহেতু সারাদেশে পণ্য বিক্রি করতে চায় সেহেতু সারাদেশেই তার পণ্য বিপণনের জন্য অবকাঠামো ও লোকবল প্রয়োজন হয়। আর এই প্রয়োজন মেটাতে সে ডিপো, ডিস্ট্রিবিউটর, ডিলার ইত্যাদি মধ্যসত্ত্ব ভোগী শ্রেণি তৈরি করেছে যারা তার কাছ থেকে কমিশনের বিনিময়ে অবকাঠামো ও লোকবলের অভাব পূরণ করে এবং সমগ্র দেশে তার সাপ্ল্যাই চেইন নিয়ন্ত্রণ করে পণ্য সরবরাহ ও বিক্রয় ব্যবস্থাকে সচল রাখে; আর এখানে আন্তর্জাতিক কোম্পানির তেমন কোন খরচ থাকে না। অন্যদিকে ছোট কোম্পানিকে নিজ খরচে বিপণন কাজ করতে হয়, আর যদি মধ্যসত্ত্ব ভোগী শ্রেণিকে নিয়োগ করতে পারেও তাদের আন্তর্জাতিক কোম্পানির চাইতে বেশি কমিশন দিতে হয় বিনিময়ে বেশির ভাগ ক্ষেত্রে তারা শুধুমাত্র ওয়্যারহাউজের কাজ করে বিপণন সংক্রান্ত সকল খরচ ও লোকবল ছোট কোম্পানিকেই বহন করতে হয়। ফলে ছোট কোম্পানির মধ্যসত্ত্ব ভোগীদের কমিশন প্রদান করণে মূলত উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি ছাড়া তেমন কোন কাজই হয় না।

৩) লভ্যাংশ অর্জনে ব্যর্থতাঃ- আন্তর্জাতিক কোম্পানির পণ্য উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা অনেক বেশি থাকে বলে কোন কোন ক্ষেত্রে তার উৎপাদন খরচ ছোট কোম্পানির অর্ধেক হয়। ফলে উৎপাদন ব্যয়ের দিক থেকে আন্তর্জাতিক কোম্পানির লাভ ছোট কোম্পানির দিগুন। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক কোম্পানির প্রচার-প্রচারণা ও বিপণন খরচও সামগ্রিক ভাবে ছোট কোম্পানির চেয়ে কম। ফলশ্রুতিতে গুনগত মানসম্পন্ন পণ্য উৎপাদনে সক্ষম হওয়া সত্ত্বেও আন্তর্জাতিক কোম্পানির সাথে প্রতিযোগিতার চাইতে ছোট কোম্পানিকে টিকে থাকার জন্য সংগ্রামই করতে হয় বেশি। 

 

দ্বিতীয় ধাপঃ- সমস্যার সমাধান নির্ণয়

সমাধান প্রথম ধাপের আলচনার মধ্যেই রয়েছে এবং সদিচ্ছা নিয়ে কাজ করলে সমাধান খুবই সহজ। কোন একজন যদি ছোট উদ্যোক্তাদের হয়ে পণ্যের প্রচার-প্রচারনা, বিতরন ও পরিবহনসহ সকল কর্মকাণ্ডের দায়িত্ব পালন করে তাহলে উদ্যোক্তা তার পণ্যের মান উন্নয়নে পূর্ণ মনোনিবেশ করতে পারবেন এবং ছোট উদ্যোক্তার জন্য আন্তর্জাতিক ব্রান্ডের সাথে প্রতিযোগিতায় জয়ী হওয়ার পথ সুগম হবে। এই ক্ষেত্রে  ভোক্তাদেরও উদ্যোক্তাদের সুযোগ করে দেয়ার স্বদিচ্ছা থাকতে হবে।

শেষ ধাপঃ- নির্ণীত সমাধানের বাস্তবায়ন

সমাধানের যে উপায় নিয়ে আলোচনা করলাম তা বাস্তবায়ন যতটা সহজে ব্যাখ্যা করলাম ততটা সহজ নয়। কারণ এটি বাস্তবায়নের জন্য উদ্যোক্তা, ভোক্তা এবং আনুষঙ্গিক সকলের আন্তরিক সহযোগিতা ও সরাসরি অংশগ্রহণই প্রথম ও শেষ কথা। আর সম্পূর্ণ কর্মযজ্ঞের সমন্বিত বাস্তবায়নের দ্বারাই আমরা আমাদের উদ্যোক্তাদের সক্ষমতা আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রমাণ করে নিজেদের সফলতার সাথে সাথে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখতে পারব। 

নিম্নের বিস্তারিত আলোচনার মাধ্যমে সম্পূর্ণ বিষয়টি আরও পরিস্কার ভাবে বুঝানোর চেষ্টা করছি।

# প্রচার কাজে সহযোগীঃ- আলাউল ডট কম (alaul.com)কে সকল ছোট ও মাঝারি স্থানীয় উদ্যোক্তাদের হয়ে প্রচার  কাজ করতে হবে। এতে উদ্যোক্তাদের পণ্যের প্রচারে কোন খরচ করতে হবে না।  উদ্যোক্তাদের দায়িত্ব হবে শুধুমাত্র পণ্যের প্রচারের কাজে আলাউল ডট কম (alaul.com)কে পরিপূর্ণ সহযোগিতা করা (যেমন- অর্ডার হওয়া পণ্যের ডেলিভারি নিশ্চিত করা, পণ্যের মূল্য নির্ধারণে সচেতন হওয়া যাতে ভোক্তা মূল্য যাচাই করে অভিযোগ করতে না পারে, পণ্য সম্পর্কে বা যে কোন অভিযোগের দ্রুততম সময়ে নিষ্পত্তি করা ইত্যাদি)। 

অন্যদিকে ভোক্তাদের উচিত দেশিও পণ্য হিসেবে উদ্যোক্তাদের পণ্য আলাউল ডট কম (alaul.com) থেকে সংগ্রহ করে পণ্যের গুনগত মান যাচাইয়ের মাধ্যমে উদ্যোক্তা ও আলাউল উভয়কেই উৎসাহিত করা।

# উদ্যোক্তাদের দায়িত্বঃ- যেহেতু উদ্যোক্তাগণের পণ্যের প্রচারের যাবতীয় কর্মকাণ্ড  আলাউল ডট কম (alaul.com) পরিচালনা করবে সেহেতু উদ্যোক্তাগণের দায়িত্ব হবে পণ্যের গুনগত মানের ক্রমাগত উন্নতি সাধনের দিকে মননিবেশ করা যাতে তারা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তাদের উৎপাদিত পণ্যের স্বীকৃতি আদায় করতে পারে। এবং যেহেতু আলাউল ডট কম (alaul.com) উদ্যোক্তাগণকে মধ্যসত্ত্ব ভোগীদের হাত থেকে রক্ষা করছে সেহেতু আলাউল ডট কম (alaul.com)-এর জন্য তাদের পণ্যের দাম সবচেয়ে কম থাকতে হবে। আর এতে করে তার কোন ধরনের বাড়তি খরচ ছাড়া অনলাইনে বিক্রি বাড়ার সাথে সাথে তাঁর পণ্যের প্রচারও বিস্ময়কর ভাবে বেড়ে যাবে।

# ভোক্তাদের দায়িত্বঃ- আলাউল ডট কম (alaul.com) ক্রেতাদেরকে ঘরে বসে পাইকারি দামে ভাল মানের পণ্য কেনার ব্যবস্থা করে দিচ্ছে, তাই ক্রেতাদের কর্তব্য হল আলাউল ডট কম (alaul.com) থেকে পণ্য কেনা ও প্রচার-প্রচারনায় অংশ নেয়া।  এবংপণ্যের মান ভাল হলে পণ্য সম্পর্কে ভাল রিভিউ দিয়ে সবাইকে জানানোর মাধ্যমে দেশীয় ব্রান্ডের উত্থানে সহযোগিতা করা। আর যদি পণ্যের মান আশানুরূপ না হয় তবে নিজের গঠনমূলক পরামর্শের মাধ্যমে উক্ত প্রতিষ্ঠানকে পণ্যের মান উন্নয়নে সহায়তা করা।

 

অতএব পরিশেষে বলবো সামগ্রিক ভাবে কাজটি কঠিন হলেও অসম্ভব নয়, শুধু প্রয়োজন দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে কাজ করে যাওয়া। পার্শ্ববর্তী দেশ চীনের বাজার ব্যবস্থাপনার সঠিক বিশ্লেষণের দিকে লক্ষ্য করলেই  আমরা তা পরিস্কার ভাবে বুঝতে পারব।

Back to list

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published.